Recent News
লাকসাম-চৌদ্দগ্রাম সড়কে ব্রীজের ভাঙ্গা পাটাতনে ট্রাক আটক, ৫-৬ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ

 জনগণের ব্যাপক ভোগান্তিঃ লাকসাম চৌদ্দগ্রাম সড়কের ফেলনা-চাঁন্দিশকরা সীমান্তবর্তী ষ্টীল ব্রীজের ভাঙ্গা পাটাতনে মঙ্গলবার রাতে এবং বুধবার ভোর ট্রাক আটকে পড়ে যান ৫-৬ ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। এসময় ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়েন শত শত যাত্রী এবং ভারী যানবাহন। ভোরে আটকে পড়া ট্রাকটি ৫ ঘন্টা পর ভাঙ্গা পাটাতন থেকে বের করা হলেও ব্রীজের ১টি পাটাতন উল্টে পড়ায় অনেক ঝুঁকি নিয়ে ছোট-বড় যানবাহন চলাচল করছে। স্থানীয়রা এবং ভুক্তভোগীরা জানায়, ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পর চৌদ্দগ্রাম উপজেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক লাকসাম-চৌদ্দগ্রাম সড়ক। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এবং কোটি কোটি টাকার পণ্য নিয়ে ভারী যানবাহন যাতায়াত করে। কিন্তু দীর্ঘ কয়েকবছর ধরে ব্রীজটির কয়েকটি পাটাতন ভেঙ্গে পড়ায় যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। সওজ কর্তৃপক্ষ বিগত সময়ে ২-১ বার ভেঙ্গে পড়া পাটাতন পরিবর্তন করেই দায়িত্ব শেষ করে। পরবর্তীতে কিছুদিন পরই ভারী যানবাহনের চাপে অপর পাটাতন ভেঙ্গে পড়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানায়, বিগত ২-৩ মাস ধরে প্রায় প্রতিদিনিই ভাঙ্গা পাটাতনে গাড়ি আটক হয়ে ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটছে। এসব দুর্ঘটনায় অনেকে আহতও হয়। ইতোপূর্বে বিভিন্ন সময় জাতীয় এবং স্থানীয় পত্রিকায় সওজ কর্তৃপক্ষের বক্তব্যসহ খবর প্রকাশিত হলেও কর্তৃপক্ষ এখনো ব্রীজটি নির্মাণে কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *