আবারও বেড়েছে দুদকের নামে চাঁদাবাজী
দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নামে আবারও প্রতারণায় নেমেছে এক বা একাধিক সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। এসব চক্র বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ  দাবি বা আদায় করছে এমন অসংখ্য অভিযোগ দুদক হটলাইনে পেয়েছে কমিশন।
দুদকের নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্য এবং বিভিন্ন ভুক্তভোগীর কাছ থেকে প্রাপ্ত এসব অভিযোগ হতে অবগত হয়েছে। এই প্রতারকচক্র বিভিন্ন নামে কমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী পরিচয় দিয়ে এক বা একাধিক সংঘবদ্ধ চক্র সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, ব্যবসায়ী, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তি, ব্যাংক-বিমায় কর্মরত ব্যক্তিসহ বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত ব্যক্তিদের কাছে তাদের নামে কমিশনে অভিযোগ রয়েছে। যাদের নিকট থেকে টাকা দাবি করেন তাদের কারও কারও বিরুদ্ধে কমিশনের করা মামলা বিবেচনাধীন আবার কোনো অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার কথা বলে টেলিফোনে অথবা মোবাইল ফোনে অনৈতিক আর্থিক সুবিধা দাবি করছে।
এ প্রেক্ষাপটে সকলকে সচেতন হতে হবে। কারণ দুদক একটি সংবিধিবদ্ধ সংস্থা। এই সংস্থায় কোনো ব্যক্তির একক ক্ষমতায় অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়ার অথবা অভিযুক্ত হওয়ার কোনো আইনি সুযোগ নেই। কমিশন অনুসন্ধান বা তদন্ত সংক্রান্ত সব ধরনের যোগাযোগ টেলিফোন বা মোবাইল ফোনে নিষিদ্ধ করেছে। কমিশনের এ সংক্রান্ত সব যোগাযোগ কেবল লিখিত পত্রের মাধ্যমেই করা হয়। টেলিফোন বা মোবাইলফোনে অভিযুক্ত বা অভিযোগসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগের কোনো  প্রশাসনিক এবং আইনি সুযোগ নেই। এসব প্রতারকদের বেশ কিছু সদস্যকে ইতোপূর্বে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে । অনেকের বিরুদ্ধে মামলা বিচারাধীন আছে।
এছাড়া ইতোপূর্বে এ বিষয়ে কমপক্ষে ১০ বার প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সর্বসাধারণকে সচেতন করা হয়েছে। এ প্রেক্ষাপটে কমিশন এরূপ প্রতারকদের অবৈধ কর্মকাণ্ড সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানাচ্ছে। এ জাতীয় প্রতারকদের আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে এদের বিরুদ্ধে নিকটস্থ থানা অথবা র‌্যাব কার্যালয় অথবা দুদকের পরিচালক (গোয়েন্দা) মীর মোঃ জয়নুল আবেদীন শিবলী তাঁর মোবাইল নাম্বার -০১৭১১-৬৪৪৬৭৫  এবং দুদক পরিচালক (জনসংযোগ), প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য, মোবাইল নাম্বার-০১৭১৬-৪৬৩২৭৬ এ যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *